কলিকি বেবীঃ নবজাতক যখন অকারণে কাঁদে

কলিকি বেবীঃ নবজাতক যখন অকারণে কাঁদে

কলিকি বেবীঃ নবজাতক যখন অকারণে কাঁদে

By In undefined On 4/7/2020

আপনার সদ্য জন্মানো শিশুটি যদি শারীরিক কোনো সমস্যা ছাড়াই দিনে তিন ঘন্টা তারস্বরে কাঁদে, এই কান্না যদি সপ্তাহে অন্তত তিন দিন চলে তাও আবার তিন সপ্তাহ ধরে তো চিকিৎসাবিদ্যার পরিভাষায় সে কলিকি বেবী। সাধারণত নবজাতকরা ঘুম,ক্ষিধে,ডায়াপার পরিবর্তনের অস্বস্তি বা শারীরিক কোনো সমস্যার জন্যে কাঁদে। কলিকী বেবীর ক্ষেত্রে এসব কোনোটাই কারণ নয়। তবু ডাক্তাররা কিছু কারণ অনুমান করেন। যেমন- গ্যাসের সমস্যা বা অন্য কোনো ধরনের অস্বস্তির জন্যে এই সমস্যা হচ্ছে। কলিক (colic) শব্দের অর্থই গ্যাস বা অন্য কিছুর জন্যে তলপেটে তীব্র ব্যাথা। অনেকে শিশুকে এন্টিগ্যাস সিরাপ দিলেও তা খুব একটা কাজ করে এমন প্রমাণ মিলেনি।

সাধারণত নবজাতকে্র ৪ মাসের মধ্যেই এই সমস্যা কমে যায়। সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসলেই কলিকি বেবির উৎপাত যেন বেড়ে যায়। আপনার বাচ্চা যদি কলিকি হয় তো ৫টি টিপস চেষ্টা করতে পারেনঃ


১/ বাচ্চাকে বড় সুতির ওড়না জাতীয় আরামদায়ক কিছু দিয়ে এমনভাবে মুড়িয়ে ফেলা যেন হাত পা নড়াচড়া করতে না পারে। এতে সে আরামে ঘুমিয়ে পড়বে।

২/ বিভিন্ন ধরণের আওয়াজ শুনিয়ে শান্ত করার চেষ্টা করা যায়।যেমনঃ পানি পড়ার শব্দ বা ভ্যাকুয়াম ক্লিনারের শব্দ। এধরনের শব্দকে বলা হয় হোয়াইট নয়েজ। ইন্টারনেট থেকে এমন শব্দের ক্লিপ ডাউনলোড করা যেতে পারে।


৩/ বাচ্চাকে কোলে নেয়ার পজিশন পরিবর্তন করলেও সে হয়তো আরাম পেয়ে থেমে যাবে। সবসময় একভাবে কোলে না নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন ভাবে ধরতে হবে। কখনো বুকের সাথে মিশিয়ে, কখনো কাঁধ বরাবর অথবা পেটের উপর শোয়ানো যেকোনো ভাবে চেষ্টা করে দেখতে হবে। কোলে নেয়ার ধরন পরিবর্তনের সাথে সাথে বাচ্চাকে হালকা দুলিয়ে, আস্তে আস্তে চাপড় দিয়েও দেখতে হবে কাজ হয় কিনা।


৪/ বাইসাইকেল চালানোর মত শিশুর দুই পা দিয়ে খেললে পেটে জমে থাকা গ্যাস বেড়িয়ে শিশুকে স্বস্তি দেয়।




৫/ ফর্মুলা মিল্কের ব্র‍্যান্ড বা বুকের দুধের জন্যে সমস্যা অনুভব করলে ডাক্তারের পরামর্শে পাল্টে দিতে হবে শিশুর দুধ।


অজানা কারণে সন্তানের কান্না মা বাবাকে অন্যরকম চিন্তার যোগান দেয়। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, “যখন রাত্রি অন্ধকার হবে” অথবা (বলেছেন) “সন্ধায় উপনীত হলে, তখন তোমরা তোমাদের শিশুদেরকে আগলে রাখবে; কারণ, তখন শয়তানরা ছড়িয়ে পড়তে থাকে। তারপর যখন রাতের একটা সময় অতিবাহিত হবে, তখন তাদের ছেড়ে দিবে। আর তোমরা দরজাগুলো বন্ধ করবে এবং আল্লাহ্‌র নাম নিবে; কেননা শয়তান কোনো বন্ধ দরজা খুলে না। আর তোমরা তোমাদের পানপাত্রসমূহ বেঁধে রাখবে এবং আল্লাহ্‌র নাম নিবে। আর তোমরা তোমাদের থালা-বাসন ঢেকে রাখবে এবং আল্লাহ্‌র নাম নিবে, যদিও সামান্য কিছু তার উপর রাখ। আর তোমরা তোমাদের ঘরের প্রদীপগুলো নিভিয়ে রাখবে।”

(বুখারী, ফাতহুল বারীসহ, ১০/৮৮; নং ৫৬২৩; মুসলিম, ৩/১৫৯৫, নং ২০১২।)


শিশুদের নিরাপদ রাখতে পড়ে দিতে হবে হেফাজতের দুআ। রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম হাসান ও হুসাইন রাদিয়াল্লাহু ‘আনহুমা-এর জন্য এই বলে (আল্লাহ্‌র) আশ্রয় প্রার্থনা করতেন-


أُعِيذُكُمَا بِكَلِمَاتِ اللَّهِ التَّامَّةِ مِنْ كُلِّ شَيْطَانٍ وَهَامَّةٍ، وَمِنْ كُلِّ عَيْنٍ لاَمَّةٍ

আমি তোমাদের দু’জনকে আল্লাহ্‌র পরিপূর্ণ কালেমাসমূহের আশ্রয়ে নিচ্ছি যাবতীয় শয়তান ও বিষধর জন্তু থেকে এবং যাবতীয় ক্ষতিকর চক্ষু (বদনযর) থেকে।

উ‘ইযুকুমা বিকালিমা-তিল্লা-হিত তা-ম্মাতি মিন কুল্লি শাইতানিওঁয়া হা-ম্মাহ্‌, ওয়ামিন কুল্লি আইনিল্লা-ম্মাহ্‌

(বুখারী ৪/১১৯, নং ৩৩৭১; ইবন আব্বাস রাদিয়াল্লাহু আনহুমার হাদীস থেকে।)


শিশু কলিকি (colicky) হলে সবচেয়ে বেশি কষ্ট মায়ের। মানসিক প্রশান্তির জন্যে অন্তত ১৫ মিনিট হলেও কারো কাছে দিয়ে মা কিছুটা দূরে থাকতে পারেন। মা হাসিখুশি থাকলে বাচ্চার জন্যেও তা স্বস্তির।






তথ্যসূত্র: ১/ www.babycenter.com


২/ দোআ ও যিকির (হিসনুল মুসলিম) অ্যাপ https://goo.gl/hmWsrH


***এই সাইটের লেখার কপিরাইট মডেস্ট কালেকশন এর। লেখা আপনি অবশ্যই শেয়ার করতে পারেন, সেটা আমাদের সাইট থেকে লিংক শেয়ারের মাধ্যমে। কিন্তু কপি পেস্ট করে নিজের প্রোফাইল বা পেইজে দেয়ার অনুমতি আমরা দিচ্ছিনা। আল্লাহ আপনাকে উত্তম প্রতিদান দিন।




article

Continue Shopping Order Now