Women's health

ভেষজ ঔষধ ব্যবহারের উপকারিতা

আপনি কি জানেন সারা পৃথিবীতে যে সকল ঔষধ ব্যবহার করা হয় তার শতকরা ২৫ 
ভাগই এসেছে সরাসরি উদ্ভিদ থেকে? আল্লাহ রোগ যেমন দিয়েছে, এর প্রতিকারও দিয়ে
 দিয়েছেন।সাধারণ খাবার খাওয়ার মাধ্যমেই আমরা অনেক রোগ প্রতিরোধ করতে 
পারি।বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে দেখা গেছে সম্পূর্ণ পৃথিবীর শতকরা ৮০ ভাগ
 মানুষ জীবনের কোন নাকোন সময় প্রাথমিক চিকিৎসা হিসেবে ভেষজ উপাদান ব্যবহার 
করেছে। তাছাড়া বাচ্চাদের জন্য চিকিৎসার ক্ষেত্রে মায়েদের প্রথম পছন্দ থাকে 
ভেষজ উপাদান দিয়ে ঘরোয়া চিকিৎসা।


Women's health

মেনোপজ কি, কেন হয়, কিভাবে ডিল করবেন?

সাধারণত ৫২ বছর বয়সেএ মধ্যেই প্রতিটি নারীর মেনোপজ হয়ে যায়।মেনোপজের কোন চিকিৎসা নাই।প্রতিটি নারীকে এর মধ্য দিয়ে যেতেই হবে।মেনোপজের আসলে চিকিৎসা দেওয়া হয়না,মেনোপজের কারণে সৃষ্ট সমস্যাগুলোর জন্য চিকিৎসা দেওয়া হয়। মেনোপজের উপসর্গুগুলোর ঘরোয়াভাবেই চিকিৎসা নেওয়া যায়।নিজের জীবন যাত্রায় কিছু পরিবর্তন এনে ও কিছু কাজের মাধ্যমে আপনি মেনোপজ ঘটিত সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন।

Women's health

মায়ের সুস্বাস্থ্যে ব্যয়াম

স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ও শরীর সুগঠিত করতে ব্যয়ামের উপকারিতার কথা আমরা 

সবাই জানি। মেয়েদের শিক্ষা জীবনে এর প্রতি আগ্রহ থাকলেও সংসার জীবনে ঢুকে 

যাওয়ার পর অনেকেরই আর এর পেছনে সময় দেয়া হয় না। আজকাল যদিও শহুরে শিক্ষিত 

মেয়েদের মাঝে গর্ভকালীন ব্যয়ামের গুরুত্ব বাড়ছে কিন্তু অনেকেই এই বিষয়ে 

সঠিকভাবে জানেন না। আবার সন্তান প্রতিপালনের সময়ও নিজের যত্নে ব্যয়ামের 

গুরুত্ব সম্পর্কে অনেকে সচেতন না।


Women's health

ডিপ্রেশন –এক নীরব ঘাতক

মানব শরীর মানে শুধু রক্ত মাংসের এই কাঠামো ছাড়াও আরেকটা প্রধান ভাগ হলো 
আমাদের মন কিংবা বলা যায় মানসিক স্বাস্থ্য। আমরা শারীরিক রোগ নিয়ে যেমন খুব
 উৎকণ্ঠিত হয়ে যাই, ডাক্তার-ঔষধ-হাসপাতাল ছোটাছুটি করে বেড়াই; ঠিক বিপরীত 
কাজ করি মানসিক রোগের বেলায়। মনসিক রোগ থার্মোমিটার কিংবা প্রেশার মেশিন 
দিয়ে মাপা গেলে বোধহয় একে আমরা গুরুত্ব দিতাম। মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে আপনি 
সচেতন হওয়া মানেই আপনাকে শুনতে হবে হয় আপনি “পাগল” নয়তো এইসব “বড়লোকি 
ঘোড়ারোগ”।

Women's health

কিছু না বলা কথা-পোস্ট পার্টাম ডিপ্রেশন

আমার প্রথম সন্তানের যখন জন্ম হয়, আমি কত কিছু ভেবে রেখেছিলাম ওকে দেখে 
আমার কত আনন্দ হবে, কিভাবে ওকে যত্ন নেব, কি কি করব ওকে নিয়ে… কিন্তু যখন 
পোস্ট অপ এ জ্ঞাণ ফিরে ওকে দেখতে পেলাম, তেমন আনন্দ হলনা। শরীর জুড়ে অসহ্য 
ব্যাথা, পিপাসায় বুক ফেটে যাচ্ছে, কাশি আসছে আর কাটা জায়গায় ব্যাথা। কোনমতে
 তিন দিন পার করে বাসায় ফেরার পর হল পোস্ট পার্টাম এক্ল্যাম্পসিয়া। 
অসুস্থতার চূড়ান্ত অবস্থা যাকে বলে। বাড়িভর্তি লোক, আমার যত্নের 
ত্রুটি হচ্ছেনা, কিন্তু হঠাত করে লাইফস্টাইলের এই আমূল পরিবর্তনটা আমি মেনে
 নিতে পারছিনা। বাচ্চা হওয়ার আনন্দে বাচ্চার বাবা আমার সব আত্মীয় এবং 
শশুড়বাড়ির আত্মীয়দের শাড়ি গিফট করল, একমাত্র আমি ছাড়া। সবাই নতুন শাড়ি পড়ে 
বাচ্চা কোলে নিয়ে ছবি তুলছে, কত আনন্দিত সবাই, আর আমি এসব দেখে আরো হতাশ 
হয়ে যাচ্ছি। মনে হচ্ছিল আমার জীবন এখানেই শেষ, এভাবেই অসুস্থ, নির্ঘুম রাত 
কাটাতে হবে বাকিটা জীবন। বাচ্চাকে দেখে মনে হচ্ছে, ও না হলেই ভাল হত। আবার 
এরকম অনুভূতির জন্য অপরাধবোধেও ভুগছি; এ কেমন মা আমি! অন্যরা শুনলে কি 
ভাববে! সে এক ভয়াবহ অবস্থা।


Continue Shopping Order Now